আজ মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ই বৈশাখ ১৪৩১

আলীকদমে ইক্ষু ও সাথী ফসল চাষে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত।

সুশান্ত কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাঁ, আলীকদম (বান্দরবান) : | প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার ২ এপ্রিল ২০২৪ ০৮:২২:০০ অপরাহ্ন | কৃষি ও প্রকৃতি

পার্বত্য চট্রগ্রাম এলাকায় সুগারক্রপ চাষাবাদ জোরদার করণ প্রকল্প ও পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে বান্দরবানের আলীকদমে ইক্ষু,সাথী ফসল চাষে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত। 

 

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) বিকাল সাড়ে ৩ টায় ২নং চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড সোনাইছড়ি গ্রামের মোঃ নাছির উদ্দীন (৪২) এর প্রদর্শনী ইক্ষু প্লট  ফসলের মাঠে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

ইক্ষু চাষ কৃষক মাঠ দিবসে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মোঃ সোহেল রানার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আতাউল গনি ওসমানী।

 

এছাড়াও কৃষক মাঠ দিবসে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের কৃষিবিদ ক্যছেন মার্মা ও স্থানীয় উপকারভোগী আঁখ চাষীরা উপস্থিত ছিলেন। 

 

প্রধান অতিথি আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আতাউল গনি ওসমানী বলেন, আলীকদম উপজেলায় উন্নতজাতের এই ইক্ষু বা আঁখ চাষাবাদ অত্যন্ত লাভজনক এবং ফলন বেশি হওয়ায় কৃষকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। অর্থকারী ফসল আঁখের সাথে সাথী ফসল হিসেবে ফরাসশীম ও আন্তঃ ফসল  হিসেবে অন্যান্য ফসল চাষাবাদ করায় শস্যের নিবিড়তা বাড়ানোর পাশাপাশি লাভ বেশি হওয়ায় এটি ব্যাপক সম্ভাবনার চাষাবাদের দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন এখানে তামাক চাষের কারণে জমির উর্বরতা কমে যাচ্ছে। তামাক চাষের ফলে মানুষের শরীরে বিভিন্ন ধরনের মারাত্মক রোগ দেখা দিচ্ছে। তাই আপনারা তামাক চাষ না করতে নিরুৎসাহিত করেন উপস্থিত কৃষকদের।

 

কৃষিবিদ ক্যছেন মার্মা কনসালটেন্ট বলেন, অত্র উপজেলায় ২০২২-২৩ ও ২০২৩- ২৪ অর্থবছরে এখানে ১২০ বিঘা জমিতে ইক্ষু চাষ হয়েছে। প্রায় ৪০/৪৫ জন তামাক চাষী আঁখ চাষের আওতায় চলে আসছে এবং অনেকেই তামাক চাষ থেকে স্থানান্তরিত হয়েছে। পাহাড়ের প্রাকৃতিক ভাবে তৈরি করতে পাহাড়ি আঁখের উৎপাদন করতে মেশিন স্হাপন করেছে আগামীতেও নতুন ভাবে আরও ২ টি মেশিন স্হাপনের কার্যক্রম চলছে। ইক্ষু চাষাবাদের কারিগরি বিষয়গুলো স্থানীয় কৃষকদের মাঝে উপস্থাপন করেন।