আজ সোমবার ২৭ জুন ২০২২, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৯

সাধারণ বিমায় অর্ধেকের বেশি দাবি বকেয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক : | প্রকাশের সময় : সোমবার ২০ জুন ২০২২ ১২:০২:০০ অপরাহ্ন | অর্থনীতি

বিমা দাবির টাকা না পেয়ে গত বছর দুটি সাধারণ বিমা কোম্পানির বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ করেন কুমিল্লা-৮ আসনের সংসদ সদস্য নাছিমুল আলম চৌধুরী। বিমা দাবির টাকা না পাওয়ায় ঋণ পরিশোধ করতে না পারা এবং প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-শ্রমিক মিলে প্রায় ১৫০ জন লোক বেকার হয়ে পড়ার অভিযোগ করেন তিনি।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) চেয়ারম্যানকে লেখা অভিযোগপত্রে নাছিমুল আলম চৌধুরী উল্লেখ করেন, দীর্ঘ তিন বছর ধরে বিমা কোম্পানি দুটি বিমা দাবির টাকা পরিশোধ না করে টালবাহানা করছে। অনেকবার তাগাদা দেওয়ার পর দুই কিস্তিতে ২ কোটি টাকা পরিশোধ করলেও ক্ষতিপূরণের বাকি ৭ কোটি ১৪ লাখ ৮০ হাজার ১৭৯ টাকা পরিশোধ করেনি বিমা কোম্পানি দুটি।

দেশে ব্যবসা করা বিমা কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ হরহামেশাই ওঠে। ফলে বিমার প্রতি আস্থা রাখতে পারছেন না সাধরণ মানুষ। এতে করে বড় হচ্ছে না বিমার বাজার। আবার যারা বিমার আওতায় আসছেন, হয়রানির মধ্যে পড়ায় তারাও বিমা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন।

বিমা কোম্পানিগুলোতে বড় ধরনের দাবি বকেয়া পড়ে থাকার তথ্য উঠে এসেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ’র প্রতিবেদনেও।

সম্প্রতি আইডিআরএ থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে, দেশে ব্যবসা করা সাধারণ বিমা কোম্পানিগুলো যে পরিমাণ দাবি পরিশোধ করেছে, তার থেকে বেশি পলিসির বিমা দাবি বকেয়া রয়েছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালের জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ে সাধারণ বিমা কোম্পানিগুলো ৮ হাজার ১৩৪টি বিমা দাবির টাকা পরিশোধ করেছে। বিপরীতে ১২ হাজার ৭০৯টি বিমা দাবির টাকা বকেয়া রয়েছে। এ সময়ে সাধারণ বিমা কোম্পানিগুলোর পরিশোধ করা বিমা দাবির পরিমাণ ৪১৭ কোটি ৪৯ লাখ ৩৬ হাজার ১৫ টাকা। বিপরীতে বকেয়া থাকা বিমা দাবির পরিমাণ ১ হাজার ৪১৩ কোটি ৫৮ লাখ ১৮ হাজার ৯২৮ টাকা। অর্থাৎ উত্থাপিত হওয়া দাবির ৭৮ শতাংশের অর্থ পরিশোধ করেনি বা বকেয়া রয়েছে সাধারণ বিমা কোম্পানিগুলোতে।