আজ শনিবার ২২ জানুয়ারী ২০২২, ৯ই মাঘ ১৪২৮

রাতের আঁধারে শতবর্ষি সরকারি গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

বোয়ালখালী প্রতিনিধি : | প্রকাশের সময় : শনিবার ১১ ডিসেম্বর ২০২১ ০৩:৫০:০০ অপরাহ্ন | চট্টমেট্টো

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে স্বাধীনতা সংগ্রামের নীরব স্বাক্ষী শতবর্ষি  সরকারি আম গাছটি রাতের আঁধারে কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার মধ্যরাতে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে এ গাছটি কেটে নিয়ে যায় দূর্বৃত্তরা।

এ ঘটনায় বোয়ালখালী বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি)’র চেয়ারম্যান এসএম মিজানুর রহমান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানায়, গত কয়েকদিন আগে  থেকে পরিষদ চত্বরে বিআরডিবি গাছটি বোয়ালখালী পৌরসভার মেয়র জহুরুল ইসলাম জহুরের নির্দেশে তার চাচাতো ভাই মো. সাইফুদ্দিন গাছটি কাটা শুরু করেন। দুইদিন কাটার পর বিআরডিবির বাধার মুখে মাঝ পথে গাছ কাটা বন্ধ করে দেন। পরে ওই গাছটি শুক্রবার রাতে আবার গোড়া থেকে কেটে নিয়ে যায় কে বা কারা। তবে এলাকাটি সিসি ক্যামরার আওতায় থাকায় কারা গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে তা পরিস্কার। গাছটি স্বাধীনতা সংগ্রামের স্বাক্ষী। এভাবে উপজেলা পরিষদের ভেতর প্রবেশ করে মধ্য রাতে সরকারি গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার সাহস প্রভাবশালী ছাড়া কারো পক্ষে সম্ভব না বলে এলাকাবাসির অভিমত।

এলাকাবাসি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশে সবুজ বিপ্লব ঘটাতে বৃক্ষরোপনের উপর জোর দিয়েছেন। কিন্তু যারা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে রাতের আধারে সরকারি গাছ কাটছে তারা দেশ এবং প্রকৃতির শত্রæ। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষ নিধনকারীদের বিরুদ্ধে সিসি টিভির ফুটেজ দেখে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেয়া দরকার।

এ বিষয়ে  বোয়ালখালী বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন র্বোডের চেয়াম্যান এসএম মিজানুর রহমান বলেন, সকালে জানতে পারেন তাদের জায়গার সরকারি গাছটি রাতের আঁধারে কেটে নিয়ে গেছে।  যুগ যুগ ধরে গাছটি পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে অক্সিজেন সরবরাহ করে আসছে। তাদের কোন মতামত না নিয়ে এভাবে সরকারি বৃক্ষ নিধন যারা করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী ও থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানান তিনি।

পরিষদের ভেতর থেকে এভাবে সরকারি গাছ কেটে নেয়ার  বিষয়ে জানতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহারের সরকারি মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও প্রতিবেদকের নাম্বারটি বøক করে রাখায়  এ বিষয়ে  বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবদুল করিম  বলেন, অভিযোগটি তদন্ত করে  প্রয়োজনে মামলা নিয়ে বৃক্ষ নিধনকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান।

 

 



সবচেয়ে জনপ্রিয়