আজ শুক্রবার ১ মার্চ ২০২৪, ১৮ই ফাল্গুন ১৪৩০

সন্দ্বীপে আগুনে পুড়ে তুলার গোডাউনও বসতঘর ছাই

ইলিয়াছ সুমন, সন্দ্বীপ : | প্রকাশের সময় : সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ০৯:৪৯:০০ অপরাহ্ন | উত্তর চট্টগ্রাম

সন্দ্বীপ উপজেলার পৌরসভা ৭ নং ওয়ার্ডে চৌমুহনী বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে একটি ভারাটিয়া বসতঘর ও একটি তুলার গোডাউন পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ১২ ফেব্রয়ারি বিকেল ৪ টা ১৫ মিনিটে এ ঘটনা ঘটে, এ ছাড়া ও অগ্নিকান্ডে আশপাশের রশি দোকান সহ কয়েকটি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জানা গেছে  একটি মোবাইল নাম্বার ও ৯৯৯ নম্বরে খবর পেয়ে বিকেল ৪.২০ মিনিটে  ফায়ার সার্ভিসের ১৪ জন সদস্য  দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে, ৪.২৫ মিনিটে   আগুন নিবারকের কাজ শুরু করে, প্রায় ১ ঘন্টা ১৫ মিনিটে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিবাতে সক্ষম হয়। ফায়ার সার্ভিসের তথ্য মতে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সুত্র পাত। প্রত্যক্ষদর্শী পাশের বিল্ডিং এর মালিক রিজভী জানান তুলার গোডাউনে যে সব কর্মচারি কাজ করেন তারা সার্বক্ষিক বিঁড়ি সিগারেটে আসক্ত, সিগারেট থেকে উক্ত আগুন লাগছে। তবে তুলার গোডাউনের কর্মচারি মনির বলেন বৈদ্যুতিক শর্ট থেকে এ আগুন লাগছে। তুলার গোডাউনের মালিক শাহআলম টেলিফোনে যোগাযোগ করা হলে জানান আমি চট্টগ্রাম আছি, এ আগুনে আমি নিঃস্বব্দ হয়ে গেছি ঋনকরে আমি ব্যাবসাটি করছি, আমার মেশিন সহ ৩ লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে। বসতঘরের ক্ষতি গ্রাস্ত দেলোয়ার জানান আমি রিক্সা চালিয়ে ঘর ভাড়া সহ পরিবার চালায়  এ ঘরে ৮ বছর ভাড়া থাকি, কিছুদিন আগে কিন্তিতে ফ্রিজ কিনেছি, এখন আমার ৩ লক্ষ টাকা ঘরের আনুষঙ্গিক সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

সন্দ্বীপ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত ষ্টেশন অফিসার মইন উদ্দিন জানান ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিবারক করতে সক্ষম হয়, বৈদ্যুতিক শর্টথেকে আগুনের সুত্র পাত বরে ধারনা করছি, এতে আনুমানিক ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়েছে, ২০ লক্ষ টাকার মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হই। 

আগুন লাগার স্থল পরিদর্শন করছেন সন্দ্বীপ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাইনউদ্দীন মিশন।