আজ মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪, ৪ঠা আষাঢ় ১৪৩১

ঈদগাঁও -ঈদগড় সড়ক থেকে যুবক অপহৃত

কামাল শিশির, রামু : | প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০২৩ ০৭:৪৮:০০ অপরাহ্ন | কক্সবাজার প্রতিদিন

কক্সবাজারের ঈদগাঁও – ঈদগড় সড়কে তারেকুর রহমান (২৩) নামে যুবক অপহরণের শিকার হয়েছেন। বর্তমানে মুঠোফোনে মুক্তিপণের জন্য হুমকি দেয়া হচ্ছে পরিবারকে। গত সোমবার রাত পৌনে ১২টার দিকে ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কের পানেরছড়া ঢালায় এই ঘটনা ঘটে। তারেক ঈদগড়ের ধুমছকাটার মো. ওসমানের ছেলে।

 

ঈদগড় ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম জানান, সোমবার রাত পৌনে ১২টার দিকে তারেক তার টমটম অটোরিকশা নিয়ে ঈদগাঁও বাজার থেকে ঈদগড় যাচ্ছিলেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন শহিদুল ইসলাম, জাহেদ ও আব্দুল খালেক নামে আরও তিন যুবক। পথিমধ্যে পানেরছড়া ঢালায় অপহরণকারীদের কবলে পড়ে তারা।

 

তিনি জানান, অপহরণকারীরা আব্দুল খালেক ও জাহেদকে ছেড়ে দিলেও তারেক ও শহিদুলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পাহাড়ে নিয়ে যায়। পরে ভোরে পাহাড়ের এক আস্তানা থেকে অন্য আস্তানায় নিয়ে যাওয়ার সময় অপহরণকারীদের কবল থেকে পালিয়ে আসে শহিদুল। বর্তমানে তারেকের পরিবারের কাছে ফোন করে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে অপহরণকারীরা। অপহৃত তারেক স্থানীয় ইউপি সদস্য খোরশেদ আলমের বোনের ছেলে।

 

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, আগামী শুক্রবার তারেকের বিয়ের দিন ধার্য করা হয়েছে। বিয়ের দাওয়াপত্র অর্ডার করতে বন্ধু শহিদুলকে নিয়ে ঈদগাঁও বাজারে গিয়েছিলেন তিনি। পরে ফেরার পথে ধুমছকাটা এলাকার আরও দুই যাত্রী উঠে তার গাড়িতে। তবে অপহরণকারীরা তারেক ও তার বন্ধু শহিদুলকে নিয়ে গেলেও অন্য দুইজনকে ছেড়ে দেয়।

 

ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম জানান, শহিদুল পালিয়ে আসলেও তার মুঠোফোন অপহরণকারীদের কাছে। সেই নম্বর থেকে ফোন করে তারেকের মা হোসনে আরার কাছে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হচ্ছে। তারেকের পরিবার অত্যন্ত দরিদ্র। তাদের পক্ষে মুক্তিপণ দেয়া সম্ভব নয় জানিয়ে তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। রামু থানার ওসি আবু তাহের দেওয়ান জানান, ঘটনার পর খবর পাওয়ার পর থেকে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। তবে মুক্তিপণ দাবির বিষয়টি তারা জানেন না বলে জানান তিনি।