চট্টগ্রাম, শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১

[bangla_day]

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০২১-০৮-২৭ ১৬:১৬:০০

‘রেস’ করতে গিয়ে দুর্ঘটনার কবলে ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’র শিল্পীরা

বিনোদন ডেস্ক :
গভীর রাতে ফাঁকা রাস্তায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’ নামে একটি ওয়েব সিরিজের তারকারা। বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে গুলশান-১ নম্বর গোলচত্বর থেকে মাত্র ২শ’ গজ দূরেই এ দুর্ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পায় ৫টি প্রাণ।

 প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে জানা গেছে, পাশের গাড়ির সঙ্গে পাল্লা দিতে গিয়েই বেপরোয়া গতির গাড়িটি দুর্ঘটনাকবলিত হয়।

গুলশান-২ থেকে ১ নম্বর গোলচত্বরের দিকে আসার পথে গতির প্রতিযোগিতায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হঠাৎ ফুটপাতের গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে দুমড়েমুচড়ে যায় একটি ব্যক্তিগত গাড়ি। এতে চালকের হাত ভেঙে গেলেও অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যায় চালসহ ৫ জন, আহতদের মধ্যে দুজন ইউনাইটেড হাসপাতালের আইসিইউতে রয়েছেন। তবে বাকিরা হাসপাতালের সাধারণ ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।

ফুটপাতের বৈদুতিক খুঁটি ও গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুমড়েমুচড়ে যাওয়া এ ব্যক্তিগত গাড়িটি বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বেপরোয়া গতিতে গুলশান ২ নম্বর থেকে ১ নম্বরের দিকে আসছিল। এতে আরোহী ছিল ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’ নামে ওয়েব সিরিজের অভিনেতা লাক্স তারকা নাজিফা তুষি, অভিনেতা শরিফুল ইসলাম রাজ, খায়রুল বাসারসহ ৫ জন। পাশের অপর গাড়ির সঙ্গে গতির প্রতিযোগিতায় একপর্যায়ে ১ নম্বর গোলচত্বরের কাছে রাস্তার ম্যানহোলের উঁচু অংশ অতিক্রম করার সময় নিয়ন্ত্রণ হারায় গাড়িটি।

এতে ফুটপাতের পাশের বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে গাড়ির সামনের অংশের ধাক্কা লেগে ভেঙে যায় চালকের হাত, বাকি ৪ জন মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পায়। সবাইকে ইউনাইটেড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহতদের মধ্যে অভিনেতা জুনায়েদ বোকদাদি ও নাফিস মো. ইসমাইল নামে তাদের এক সঙ্গীকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে কোনো সিসিটিভি ক্যামেরা না থাকলেও পাশের ভবনের নিরাপত্তা প্রহরীর চোখে ধরা পড়ে বেপরোয়া গতির এ চিত্র।

গভীর রাতে ফাঁকা পেয়ে রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায় বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে এমন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অনেকেই। এসব রোধে বিভিন্ন সময় চেকপোস্টগুলোতে দায়িত্বপ্রাপ্ত ট্রাফিক কর্মকর্তারা অভিযান চালায় বলে জানায় পুলিশ।

ট্রাফিক আইন ভেঙে রাতে রাস্তায় এমন গতির প্রতিযোগিতায় প্রাণ গেছে অনেকের। তবুও থামছেই না এ বেপরোয়া গাড়ি চালনা।

দেশীয় প্ল্যাটফর্ম চরকিতে ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’ মুক্তির পর থেকেই চার বন্ধুর এই গল্প প্রশংসায় ভাসছে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। মূলত বর্তমানের তরুণ দর্শকরা এই ওয়েব ফিল্মটি বেশি পছন্দ করছেন।

এখানে দেখানো হয় বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষ করে চার বন্ধু মিলে একটি ট্যুর প্লান করে, যেখানে তারা চলে যেতে চায় নেটওয়ার্কের বাইরে দূরে কোথাও। সেখানে ট্যুর প্ল্যান থেকে শুরু হয়ে ট্যুরে যাওয়া ও যাওয়ার পরের নানা প্রত্যাশিত ও অপ্রত্যাশিত ঘটনা নিয়ে  নাট্যনির্মাতা মিজানুর রহমান আরিয়ান নির্মাণ করেন ওয়েব ফিল্ম ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’।

শুধু সাধারণ দর্শকরা নয়, তারকারাও প্রশংসা করছেন ওয়েব ফিল্মটির। গুণী অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা ওয়েব ফিল্মটি দেখে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’র পুরো টিমের প্রশংসা করার পাশাপাশি এটিকে ‘মাস্ট ওয়াচ’ বলেও আখ্যা দিয়েছেন!

তাছাড়া দেশ ছাড়িয়ে ভারতেও সমানভাবে প্রশংসিত হচ্ছে ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’। পশ্চিম বাংলার দর্শকরা এটি দেখে বাংলার কাজ ও নির্মাতার গুণগানে পঞ্চমুখ হচ্ছেন। নির্মাতার কাছ থেকে এমন আরও অনেক ভালো কাজের আশা করছেন দর্শকরা।

আরো সংবাদ

%d bloggers like this: