চট্টগ্রাম, বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১

প্রকাশ :  ২০২১-০৭-২২ ২১:৫১:৪০

ভূজপুর রাবার ড্যামে পা পিছলে পড়ে কলেজছাত্রের মৃত্যু

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি:

ফটিকছড়িতে পা পিছলে পানিতে পড়ে এক কলেজ ছাত্র মারা গেছে। তার নাম মোহাম্মদ ইব্রাহীম (২১) বলে জানা গেছে।
আজ বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) দুপুরে ফটিকছড়ি উপজেলার ভূজপুর রাবার ড্যামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় ‍পুলিশ।
ইব্রাহীম নগরীর ওমরগণি এমইএস কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। বিডিনিউজ
চাঁদপুরের কচুয়ায় তাদের বাড়ি হলেও পরিবারের সাথে থাকতেন নগরীর নূর আহম্মেদ সড়কের রাবেয়া রহমান গলিতে।
ভূজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসাব উদ্দিন বলেন, “সকালে ছয় বন্ধু মিলে ভূজপুর রাবার ড্যামে বেড়াতে এসেছিলেন তারা। সেখানে ড্যামে নামার পর পা পিছলে পানিতে পড়ে যান ইব্রাহমী। স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”
প্রত্যক্ষদর্শীদের উদ্ধৃতি দিয়ে ভূজপুর থানার এসআই প্রবীণ দেব বলেন, “ইব্রাহীম ও তার বন্ধুদের মধ্যে কেউই সাঁতার জানতেন না। ড্যামে আসার পর তারা গোসল করতে নিচে নামেন। ইব্রাহীম সবার আগে যাওয়ার সময়ে ড্যামে পা পিছলে পানিতে পড়ে যান। বর্ষার কারণে ড্যামের পানি বেশি থাকায় ইব্রাহীম নিচে তলিয়ে যান। এসময় তার সাথে থাকা বন্ধুরা চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন জাল দিয়ে ইব্রাহীমকে উদ্ধার করেন।”
এসআই প্রবীণ আরও জানান, ঘটনার পর পর তারা পুলিশকে জানায়নি। নাজিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।
ইব্রাহীমের প্রতিবেশী ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী জানান, ইব্রাহীমরা এক ভাই, এক বোন এবং সে সবার বড়। তার বাবা মোহাম্মদ সেলিম রাবেয়া রহমান গলিতে একটি মুদি দোকান পরিচালনা করেন।
তিনি বলেন, “ঈদের ছুটিতে সকালে আরও পাঁচ বন্ধুর সাথে ইব্রাহীম ফটিকছড়ি গিয়েছিল রাবার ড্যাম ও চা বাগান দেখতে। দুপুরে রাবার ড্যামের পানিতে পড়ে সে মারা যায়।”
এদিকে ময়নাতদন্ত ছাড়া ইব্রাহীমের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করার জন্য তার বাবা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে আবেদন করেছেন।
ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতিও তারা পেয়েছেন এবং মরদেহ আনতে পরিবারের সদস্যরা ফটিকছড়ি রওনা করেছেন বলে জানান মহসিন কাজী।

আরো সংবাদ

%d bloggers like this: