এই মাত্র পাওয়া :

বাংলাদেশ , শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১

স্কুল ম্যানেজিং কমিটিতে মাদক ব্যবসায়ী, ১৩৯০ পিছ ইয়াবাসহ আটক

লেখক : দৈনিক সাঙ্গু | প্রকাশ: ২০২০-১২-২৬ ১৬:৪৫:১০

মঈন উদ্দিন :

পেশায় একজন ব্যবসায়ী।রয়েছেন স্বনামধন্য একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হিসেবেও। একইসাথে মাদামবিবির হাট বাজার ইজারাদার ও স্থানীয় ভাঙাপোল নবজাগরণ ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতির আসনেও তার স্থান। তবে এসব সামাজিক পদ পদবীর আড়ালে তিনি করতেন মাদক ব্যবসা। এ যেন পদ্মা নদীর বৃদ্ধ হোসেন মিয়ারই গল্প! ব্যবসা আর সমাজসেবার নামে দীর্ঘ দিন মাদক ব্যবসার ইতিহাস আমাদের হাতে এসেছে। ১৩৯০ পিস ইয়াবাসহ আটক হওয়া কথিত এই সমাজসেবকের নাম মোঃ আলাউদ্দিন (৪০)।সে সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারি ইউনিয়নের জাহানাবাদ গ্রামের জাফর আহমদের ছেলে। এছাড়াও তিনি ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সভাপতি বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী জানান, আলাউদ্দিন মাদামবিবিরহাটের একজন ব্যবসায়ী। মাদামবিবিরহাট বাজার ইজারাদার অফিসে সব সময় বসতেন। তিনি ওই অফিস থেকেই ইয়াবার কাজ-কারবার করতেন। তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যও নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত।

মাদাম বিবিরহাটের স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন,কারা এই মাদক ব্যবসায়ীকে কমিটিতে স্থান দিলো? তাদেরকেও বের করে আনা জরুরী। একজন মাদক ব্যবসায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কমিটিতে থাকা আমাদের জন্য এর চেয়ে লজ্জার আর কি হতে পারে?

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সীতাকুণ্ডের একজন আওয়ামীলীগ নেতা বলেন, দীর্ঘ ২০১২ সাল থেকেই আলাউদ্দিন ইয়াবা কারবারের সঙ্গে জড়িত। থানা পুলিশ কয়েকবার গ্রেপ্তার করেছে তাকে।

এছাড়া সীতাকুণ্ডের শিপইয়ার্ডে চাঁদাবাজি, বাজারে ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে অতিরিক্ত টাকা আদায়, কার-মাইক্রো ব্যবসার আড়ালে ইয়াবার চালান সরবরাহ- এগুলোই হলো আলাউদ্দিনের মূল কাজ।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা বলেন, আলাউদ্দিন নামের এক ব্যক্তিকে ১৩৯০ পিস ইয়াবাসহ র‌্যাব গ্রেপ্তার করেছে বলে শুনেছি। তবে তার বিরুদ্ধে থানায় আর কোন মামলা আছে কিনা তা খুঁজে দেখা হচ্ছে।

Print Friendly and PDF