এই মাত্র পাওয়া :

বাংলাদেশ , বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০

ধর্ম নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে রাঙ্গুনিয়ায় মানববন্ধন

লেখক : admin | প্রকাশ: ২০২০-০৭-১২ ২০:৪৫:৪৫



রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি :


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় রাঙ্গুনিয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের ফলাহারিয়া এলাকাবাসীর উদ্যোগে ও হযরত পাঠান আউলিয়া (রহঃ) সুন্নীয়া দাখিল মাদ্রাসার ব্যবস্থাপনায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া মানববন্ধনে সাম্প্রদায়িক আপত্তিকর নানা কটুক্তি করায় স্থানীয় শরনাংক থের নামে এক বৌদ্ধ ভিক্ষুকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে এলাকাবাসী।



রোববার (১২ জুলাই) বিকালে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন মাওলানা মোহাম্মদ হাকিম উদ্দিন। মাওলানা আবু নাছেরের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন পদুয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহেদ, পদুয়া ইউনিয়ন গাউছিয়া কমিটির সভাপতি মাওলানা আব্দুল হালিম, রাঙ্গুনিয়া ওলামা পরিষদের সভাপতি মাওলানা মো. ফারুক, পদুয়া হিলফুল ফুজুল সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী, সুখবিলাস দারুছুন্নাহ’র প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান প্রমুখ।

মানববন্ধন থেকে আগামী বুধবার (১৫ জুলাই) বিকাল ৩টার সময় পদুয়ার মুক্তিযোদ্ধা বাজারে ইসলামী জনকল্যাণ পরিষদ ও সর্বস্তরের তৌহিদী জনতার উদ্যোগে আরও একটি মানববন্ধনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

জানা যায়, পদুয়া ফলাহারিয়া এলাকায় শরনাংক থের নামে এক বৌদ্ধ ভিক্ষু সরকারি জায়গা দখল, ৭৫ হাজার সরকারি বনায়নের চারা কেটে ফেলার অভিযোগে বন বিভাগ মামলা দায়ের করে। এই বিষয়ে পুলিশ তদন্তে গেলে তাদের সাথেও তিনি খারাপ আচরণ করেন। পরবর্তীতে তিনি ফেসবুকে লাইভ দিয়ে সাম্প্রদায়িক নানা আপত্তিকর বিবৃতি দেন। তিনি অভিযোগ করেন, পদুয়ায় বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের স্বাভাবিক চলাফেরা, ধর্মীয় কাজে বাঁধা দেওয়া হয়। তার এই ধরণের বক্তব্যের পর ফেসবুকে এর প্রতিবাদ জানায় বিভিন্ন স্তরের জন সাধারণের পাশাপাশি স্বয়ং বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতারাই। এরপর ১১ জুন সকালে ফেসবুকে লাইভ দিয়ে তিনি এলাকা ত্যাগ করেন।


এরমধ্যে rumon himu নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে নানা আপত্তিকর কটুক্তি করা হয় এবং rana sadhu নামে অন্য একটি আইডি থেকে সাম্প্রদায়িক উষ্কানি ছড়ানো হয়। পরবর্তীতে এই দুই ফেসবুক আইডি ব্যবহারকারীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাঙ্গুনিয়া থানায় মামলা দায়ের হয়। ছাত্রলীগ নেতা রাসেল রাসু বাদী হয়ে মামলাটি করেন।
রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আইডি দুটির ব্যবহারকারীকে চিহ্নিত করতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। এছাড়া সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি যাতে নষ্ট না হয় সেজন্য মাঠ পর্যায়েও পুলিশ সক্রিয় রয়েছে।

Print Friendly and PDF