বাংলাদেশ , শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০

চাকরির নামে হাসপাতালে ডেকে বহু নারীকে যৌন নির্যাতন

লেখক : admin | প্রকাশ: ২০২০-০৬-৩০ ২২:০৫:১৯



আন্তর্জাতিক ডেস্ক :


চাকরির লোভ দেখিয়ে হাসপাতালে নিয়ে বহু নারীকে যৌন নির্যাতন করেছেন তিনি। অবশেষে ঘটনার ভিডিও প্রকাশ হওয়া ফেঁসে গেলেন খোদ হাসপাতালের ডেপুটি সুপার।



সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে। ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর অভিযুক্ত ডেপুটি সুপার অনন্য ধর ঘুমের ওষুধ খেয়েছেন।

মঙ্গলবার কাটোয়া হাসপাতালের নন মেডিকেল ডেপুটি সুপার অনন্য ধরের কুকীর্তির ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে।
ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ডেপুটি সুপার তার কক্ষের মধ্যে এক মধ্যবয়স্ক নারীকে অশালীনভাবে স্পর্শ করছেন। কাটোয়ার এক তরুণী সম্প্রতি ভিডিওটি সামাজিকমাধ্যমে পোস্ট করছেন।

ভিডিওটি দেখে অভিযুক্ত অনন্য ধরের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা দেয়ার দাবি উঠেছে। ফেসবুক পোস্টে ওই তরুণী মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও এমন আবেদন জানিয়েছেন। অন্যদিকে ভিডিও ফাঁস হওয়ার স্থানীয় অনেকেই মুখ খুলতে শুরু করেছেন।

স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, নারীদের কাজ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে ডেপুটি সুপার কাটোয়া মহুকুমা হাসপাতালের মধ্যেই যৌন হেনস্থা করেন। নারীদের নিয়ে দেহ ব্যবসাও চালান। তবে এমন অভিযোগে অনন্য ধরের বিরুদ্ধে কাটোয়া থানায় আগেও অভিযোগ করা হয়েছিল বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু তখন উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে নির্যাতিত নারী ঘটনাটি মীমাংসা করে নিতে বাধ্য হয়েছিলেন।



কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডাক্তার রতন শাসমল জানান, ফেসবুকে ভাইরাল পোস্টটি দেখেছি। এই ভিডিও ফুটেজটি হাসপাতালের ভেতরের। হাসপাতালের ভেতরে এই ধরনের ঘটনা বাঞ্ছনীয় নয়। এ ঘটনার বিভাগীয় তদন্ত হবে।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি নিয়ে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলছি। ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হলে অভিযুক্তের উপযুক্ত শাস্তি হবে। এ ঘটনা ফাঁস হওয়ার অভিযুক্ত অনন্য ধর ঘুমের ওষুধ খেয়েছেন।

Print Friendly and PDF