এই মাত্র পাওয়া :

বাংলাদেশ , রোববার, ১২ জুলাই ২০২০

বিশ্ব করোনা পরিস্থিতি: মৃত্যুর চেয়ে সুস্থতার সংখ্যা ১০ গুণ বেশি

লেখক : admin | প্রকাশ: ২০২০-০৬-০৪ ১১:৪৭:৪২



অনলাইন ডেস্ক:

 

বিশ্বের মোট ২১৩টি দেশে মহামারি আকারে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস। এখনও পর্যন্ত এই রোগের কোনও ওষুধ বা প্রতিষোধক বের হয়নি। যার ফলে এই ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত গোটা বিশ্বের মানুষ। তবে আশার কথা এই যে, কোভিড-১৯ রোগে সুস্থ হওয়ার সংখ্যাটা চমকে দেওয়ার মতো। এই রোগে মৃত্যুর তুলনায় সুস্থ হওয়ার পরিসংখ্যান দশ গুণ বেশি।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসেবে, করোনাভাইরাসে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৬৫ লাখ ৬৮ হাজার ৭৮৩ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩১ লাখ ৬৯ হাজার ২৬৪ জন। আর মারা গেছে ৩ লাখ ৮৭ হাজারের বেশি।

২০১৯ এর ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম হামলা হয়েছিল করোনার। চীন থেকে ইরান হয়ে ইউরোপের ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড, জার্মানিসহ বিভিন্ন দেশে মরণ কামড় বসিয়েছে করোনা।

ইউরোপকে তছনছ করার মধ্যেই উত্তর আমেরিকায় হামলা শুরু করে করোনা। এই ভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে মারা গেছে ১ লাখ ৯ হাজার ১৪২ জন। একইসঙ্গে দক্ষিণ আমেরিকার ব্রাজিলে তাণ্ডব শুরু হয়েছে ভাইরাসের। আফ্রিকার কিছু দেশেও বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। তবে আপাত নিরাপদ অস্ট্রেলিয়া এবং ওশেনিয়া মহাদেশ।



বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) রিপোর্ট বলছে, এবার দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলি যেমন, ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশে করোনার সামাজিক সংক্রমণ ও মৃত্যু রীতিমতো উদ্বেগ তৈরি করছে।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে করোনায় ভারতেই সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে। এ পর্যন্ত সেখানে মারা গেছে ৬ হাজার ৮৮ জন। আর আক্রান্ত হয়েছে মোট ২ লাখ ১৬ হাজার ৮২৪ জন।

তবে সংক্রমণ ব্যাপক হারে ছড়াচ্ছে পাকিস্তান ও বাংলাদেশেও। পাকিস্তানে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৮০ হাজারের বেশি মানুষ এবং মারা গেছে ১ হাজার ৬৮৮ জন। আর বাংলাদেশে মোট আক্রান্ত ৫৫ হাজার ১৪০ জন এবং মৃত্যু ২ হাজার ৬৯৫ জন।

পূর্ব এশিয়ার দুই দেশ জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়াতে নতুন করে ভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ায় চিন্তিত বিজ্ঞানীরা।

জাপানে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫৬ জন এবং মারা গেছে ৬ জন। ফলে দেশটিতে মোট আক্রিান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৯৮৬ জন এবং মৃত্যু ৯০০।



দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৯ জন এবং মারা গেছে একজন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মোট আক্রান্ত হয়েছে ১১ হাজার ৫২৩ জন এবং মোট মৃত্যু ২৭৩ জন।

বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সুস্থ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। সেখানে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৮৪ হাজারের বেশি মানুষ আকান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১ লাখ ৬৭ হাজার ৩শ জনই সুস্থ হয়েছেন। মারা গেছেন ৮ হাজারের কিছু বেশি মানুষ। বর্তমানে দেশটিতে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা মাত্র ৮ হাজার ৪২৬ জন।

এছাড়া সুস্থ হওয়ার তালিকায় এগিয়ে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, তুরস্ক ও রাশিয়ার মতো দেশগুলো।

সূত্র: ওয়ার্ল্ডোমিটার

Print Friendly and PDF